সেরা তার্কিক জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নুহাশ

SHARE

আদীব মুমিন আরিফ:

বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনাল (বিইউপি) এর “লিটারেচার এন্ড ডিবেটিং ক্লাব” (এলডিসি) অক্টোবরের ১৩-১৪ এবং ২০-২১ তারিখ আয়োজন করে জাতীয় বিতর্ক প্রতিযোগিতা। এই প্রতিযোগিতায় বাংলা বিতর্কে চ্যাম্পিয়ন হয় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের দল। চ্যাম্পিয়ন দলের নাম “জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ডিবেটিং সোসাইটি(জেইউডিএস) “। টুর্ণামেন্টে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের মোট ৩২টি দল অংশগ্রহন করে।চ্যাম্পিয়ন দলের সদস্যরা ছিলেন নৃবিজ্ঞান বিভাগের স্নাতক চূড়ান্ত বর্ষের আইমান সাকিব নুহাশ, প্রথম বর্ষের ফারহান সাকিব অয়ন এবং অর্থনীতি বিভাগের স্নাতক চূড়ান্ত বর্ষের মাহবুবুল ইসলাম সৈকত ও দ্বিতীয় বর্ষের নাফিস ফেরদৌস সাকিব। এর মধ্যে নাফিস ফেরদৌস শুধু প্রথম রাউন্ডে বিতর্ক করে ছোট ভাইয়ের ভর্তি পরীক্ষার জন্য চলে যান এবং নক আউট পর্বে মাহবুবুল ইসলাম তার জায়গায় স্থলাভিষিক্ত হন। দল গঠন নিয়ে নুহাশ বলেন, আমারা স্কুল থেকে প্রত্যেকে প্রত্যেককে চিনতাম বিতর্কের জন্য্। স্কুলে, কলেজে এবং বিশ্ববিদ্যালয়েও আমাদের পরিচয়ের মাধ্যম বিতর্ক। আর প্রস্তুতির বিষয়টা ছিল আমরা সবসময়্ই কোন না কোন বিতর্ক টুর্ণামেন্টে থাকি। যার জন্য নতুন কোন টুর্ণামেন্ট হলে আলাদা করে কোন খুব বেশি প্রস্তুতি নেই না।তবে বিতর্কের বিষয় পাওয়ার পর যা প্রস্তুতি গ্রহণ করি।

প্রতিযোগিতার প্রথম রাউন্ডে জেইউডি্এস পাঁচটি বিতর্কের তিনটিতে জয়ী হয়ে সপ্তম দল হিসেবে নক আউট পর্বে উঠে। প্রথম রাউন্ডে তারা ডিআইইউ-ডিসি ও জিওডি-ডিইউ এর কাছে হারে। এবং জেএনইউ-ডিএস, ইস্টওয়েস্ট-ডিসি ও এনএসইউ-ডিসি এই তিন দলের সাথে জয়ী হয়ে নক আউট পর্বে উঠে।নক আউট পর্বের কোয়ার্টারে তাদের বিতর্ক হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জিওডি এর সাথে। বিষয় এই সংসদ মনে করে উচ্চবিত্ত পরিবারের সন্তানদের অপরাধের জন্য তাদের বাবা-মাকে শাস্তি দেয়া উচিৎ।এই পর্বে তারা বিপক্ষ দল হিসেবে বিতর্ক করে জয়ী হয়। সেমফিাইনালে তাদের বিতর্ক হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিবেটিং সোসাইটির সাথে। বিষয় ছিল এই সংসদ কাতালুনিয়ার স্বাধীনতাকে সমর্থন করে। এই পর্বে বিপক্ষ দল হিসেবে বিতর্ক করে ফাইনালে উঠে। ফাইনালে তাদের বিতর্ক হয় ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির সাথে ।বিষয় এই সংসদ পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে মাদকের বৈধতা দিবে। এখানে তারা বিপক্ষ দল হিসেবে বিতর্ক করে। ফাইনালে সেরা বিতার্কিক হয় জাবির আইমান সাকিব নুহাশ।