সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পাশে একদল স্বপ্নবাজ তরুণ

SHARE

আশরাফুর রহমান: সেই ২০১১ সালের কথা… কলেজ পড়ুয়া কিছু তরুণ নিজেদের বন্ধুমহল দাপিয়ে বেড়ায়। হাসি-ঠাট্টার মাঝে বুঁদ হয়ে থাকা সেই তরুণরা প্রতিদিনই আশপাশে এমন অনেক মানুষ দেখে যাদের জীবনের প্রতিটি পরতে পরতে আছে অভাব-অনটন, এমনকি তাদের বেঁচে থাকবার জন্য এমন কোন উৎসাহ কিংবা অবলম্বন নেই। তারা প্রচন্ড অসহায় বোধ করে। এই মানুষগুলোর জন্য তাদের কি কিছুই করার নেই?

12694627_976673775759061_5531540842344453955_oএসমস্ত ভাবতে ভাবতেই একসময় তারা বোঝে- নাহ, হাত পা গুটিয়ে পড়ে থাকলে সত্যিই কিছুই হবে না। তারা দলবেধে একটা সংগঠন শুরু করে দেয়- যে সংগঠন নিজেদের কোন স্বার্থে না, এই সংগঠন একটি মানবিক সংগঠন, যার নাম তারা দেয়- ‘লাইট অফ হোপস ইউথ ফাউন্ডেশন’। সমাজের দুঃস্থ অসহায় মানুষের মধ্যে আশা জাগানিয়া এই সংগঠনের মূল লক্ষ্য অসহায় মানুষগুলোকে নিয়ে হবেও- সংগঠনটি ৩টি উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে পথ চলছে-
16780110_651670935034250_52120603_n
১) দরিদ্র মেধাবী শিক্ষার্থীদের শিক্ষামূলক বৃত্তি প্রদান।
২) ক্ষুদ্র ব্যবসা স্থাপনের মাধ্যমে অসহায় মানুষের জন্য কর্মসংসস্থান সৃষ্টি।
৩) দরিদ্র রোগীদের জন্য চিকিৎসার ব্যবস্থা করা।

উপরোক্ত লক্ষ্য নিয়ে যাত্রা শুরু করলেও লাইট অফ হোপস ইয়ুথ ফাউন্ডেশন নিয়মিতভাবেই সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের জন্য কাজ করে যাচ্ছে। তবে এই সংগঠনটি ‘সুবিধাবঞ্চিত শিশু’র চাইতেও তাদেরকে ‘আলোকিত শিশু’ বলতে বেশি স্বচ্ছন্দবোধ করে। তারা বিশ্বাস করে, এই শিশুরাই বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ। আলোকিত শিশুদের নিয়ে তারা যেসব কাজ করেছে তার মধ্যে পিঠা উৎসব, ফল উৎসব, মেহেদী উৎসবসহ বিভিন্ন উৎসব পালনে আলোকিত শিশুদের সাথে আনন্দ ভাগাভাগি করে নেয়া, ঈদের নতুন জামা বিতরণ, এতিমখানায় ইফতার বিতরণ, শিক্ষা উপকরণ বিতরণ ইত্যাদি কাজ ইতোমধ্যেই বেশ সাড়া ফেলেছে। এছাড়াও, শীতবস্ত্র বিতরণ, ফ্রি চেকআপ, ‘প্রোজেক্টঃ স্বাবলম্বীকরণ’, রক্ত সংগ্রহ ইত্যাদির পাশাপাশি যে কোন প্রাকৃতিক দুর্যোগেও নিয়মিত মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে সংগঠনটি।

15003182_1200252733401163_1977353324847196987_o

এ পর্যন্ত সম্পূর্ণ স্বেচ্ছাশ্রম এবং অনুদানের ভিত্তিতেই সংগঠনটি নিরলস কাজ করে যাচ্ছে। আগামীতে সুবিধাবঞ্চিত মানুষের জন্য কারিগরি শিক্ষা স্থাপনের স্বপ্ন দেখে লাইট অফ হোপস ইয়ুথ ফাউন্ডেশন।

তরুন সমাজকে মানবিক/ সামাজিক কাজে আগ্রহী করে তোলার জন্য কাজ করছে সংগঠনটি। তারা আশা করে, বাংলাদেশের তরুণ সমাজ যদি কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে এগিয়ে আসে, তাহলে কোন সমস্যাই এদেশের সামনে এগুনোর পথে বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারবে না। পাশাপাশি ‘লাইট অফ হোপস’ আশা রাখে সমাজের বিত্তবানরা তাঁদের সামর্থ্য অনুযায়ী অসহায় মানুষের পাশে এসে দাঁড়াবেন এবং সুন্দর বাংলাদেশ গড়তে অগ্রনী ভুমিকা পালন করবেন।